আজকাল প্রায় সবার হাতে হাতেই স্মার্টফোন দেখা যায় সেই হিসাবে বলা যায় সবাই অন্তত একটি ক্যামেরার মালিক। এসব ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করা নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। মোবাইল কোম্পানিগুলোও তাই বিভিন্ন হাই ফাংশনসহ ক্যামেরা অফার করছে। আবার ক্যামেরা কোম্পানীগুলোও বসে নেই, এরাও কমদামে ভাল ভাল কমপ্যাক্ট পয়েন্ট এন্ড শুট ক্যামেরা অফার করছে। তাই বলা যায় এযুগে সবাই ফোটোগ্রাফার! যদিও এদের বড় একটি অংশই ফোটোগ্রাফি নিয়ে কিছু মৌলিক জ্ঞানের অভাবে ভাল ছবি তুলতে পারেন না। কিন্তু সাধারন কিছু নিয়ম মেনে ছবি তোললে আপনার ছবিও সকলের প্রশংসা পেতে পারে। আসুন সাধারণ কিছু টিপস জেনে নেই, এগুলো অনুসরণ করলে আপনি নিজেই আপনার আগের আর বর্তমান ছবির পার্থক্যটা বুঝতে পারবেন।

*আপনার ক্যমেরার সেটিং গুলোর সাথে পরিচিত হয়ে নিন। আপনার ক্যমেরার বিভিন্ন ফাংশন আছে, এগুলোর সাথে যত পরিচিত হবেন, তত বেশি ঝামেলা কম হবে ছবি তোলার সময়। তাই সবকটা ফিচার চেক করে দেখে নিন, দরকারে হলে ছবি তুলে তুলে ফিচার গুলো প্রাকটিস করুন।

* বাইরে ছবি তোলার সময় খেয়াল করুন কখন ছবি তুলছেন। সকাল আটটা থেকে এগারোটা প‌‌‌‌‌‌‌‌‌র্যন্ত সময় ছবি তোলার জন্য ভাল। এরপরে তুললে ছবি বা‌‌‌‌‌‌‌‌‌র্ণ করবে। এগারোটার পর থেকে বিকাল তিনটা বা চারটা প‌‌‌‌‌‌‌‌‌র্যন্ত ছবি তোলার জন্য বিশেষ ফিল্টার ব্যবহার করেন প্রফেশনালরা,যেগুলো ব্যবহারের সুযোগ আপনার নেই বলে ধরে নেয়া হল। তাই ছবি তুললে সকাল এবং বিকাল সময়টা বেছে নিন।

* ঘরে বা ইনডোর ছবি তোলার সময় প‌‌‌‌‌‌‌‌‌র্যাপ্ত লাইট এর ব্যবস্থা রাখুন। সম্ভব হলে বাইরে গিয়ে ছবি তুলুন, দিনের আলোটাকে ব্যবহার করুন। বাইরে ছবি তোলার সময় খেয়াল রাখুন, আলোর মুল সো‌‌‌‌‌‌‌‌‌র্স, যেটা বাইরের ক্ষ্রেত্রে অবশ্যই সূ‌‌‌‌‌‌‌‌‌র্য্য হবে, সেটা যেন আপনার পেছনে থাকে,সাবজেক্ট বা যার ছবি তুলছেন, তার পেছনে না হয়। এটা করলে সাবজেক্ট এর চেহারা কালো দেখাবে, আপনার ছবি নষ্ট হয়ে যেতে পারে। উল্টোটা করলে আপনার পেছন থেকে আলো আসবে, সাবজেক্ট প্রচুর পারিমানে আলো পাবে এবং ছবি ভাল আসবে।

* ছবি তোলার সময় কোন অবজেক্ট কোথায় থাকবে এবং আপনার সাবজেক্ট ছবির ফ্রেমের কোথায় থাকবে, এটা নিয়ে কাজ করাই হল কম্পোজিশন। এগুলো নিয়ে কিছু সাধারণ নিয়ম আছে, সেগুলো মেনে চললে ছবি ভাল আসবে। এই রুলস এর সামান্য একটা দুটা এখানে বলা হচ্ছে, কারন বিস্তারিত বলতে গেলে সেটা হয়ে যাবে একটা মহাকাব্য!

ছবির সাবজেক্ট
(ধরে নেয়া হল সে মানুষ!)
এর মাথা বা মুল আক‌‌‌‌‌‌‌‌‌র্ষণ যেন ঠিক মাঝখানে না হয়। এটা ডানে বা বামে যে কোন এক দিকে একটু উপরের দিকে হলে দেখতে ভাল লাগবে। বিশেষ দরকার না হলে উপরে জায়গা ফাকা রাখবেন না। কারও ছবি তোলার সময় কোথা থেকে কতটুকু ফ্রেমের মাঝে রাখবেন, সেটা বিচার করাটা গুরুত্ব‌‌‌‌‌‌‌‌‌পু‌‌‌‌‌‌‌‌‌র্ণ। মানুষের ফেসের ছবি তোলার সময় নিচের অংশ যেন কোনভাবেই গলায় গিয়ে না কাটে। এটাতে ছবিটা মাথাকাটা মনে হবে, একটা অস্বস্তিকারক অবস্থার সৃষ্টি হবে। এভাবেই বুক প‌‌‌‌‌‌‌‌‌র্যন্ত নেবার সময় কনুই এর একটু উপর থেকে কাটুন, অথবা একটু নিচ থেকে। ঠিক কনুই থেকে কাটবেন না। কোমড় থেকে কাটবেন না, একটু উপরে বা নিচে থেকে কাটুন, হাটু থেকে কাটবেন না, একটু উপরে বা নিচ থেকে কাটুন। এরকম বিভিন্ন রুলস আছে কম্পোজিশন করার । সময় করে জেনে নিন। ইন্টারনেটে সব পাওয়া যায়। আমরাও চেষ্টা করবো সময় সময় বিস্তারিত জানাতে।

আরও পড়ুনঃ সুন্দর ছবি তোলার ৯টি টিপস

* ছবি তোলার সময় খেয়াল করুন ব্যাকগ্রাউন্ড এর উজ্বলতা যেন অবশ্যই সাবজেক্ট এর চেয়ে কম হয়। নয়ত সাবজেক্ট কালো এবং অস্পষ্ট হয়ে যাবে।

* ছবি তোলার সময় চেষ্টা করুন আই লেভেল বা সাবজেক্ট এর নিজস্ব উচ্চতায় ছবি তুলতে। আপনি উপর থেকে সাবজেক্ট এর ছবি তুললে বা নিচ থেকে তার ছবি তুললে সেগুলো বিশেষ সময় ছাড়া বাকি সময় বাজে দেখাবার চান্স থাকবে।

* ছবি তোলার সময় চেষ্টা করুন একই ছবি কিছু ভিন্ন ভিন্ন আঙ্গিকে কয়েকবার তুলতে। এভাবে করলে এর মাঝে একটা না একটা ছবি সুন্দর হতে বাধ্য!!

* অতি অবশ্যই ছবি স্পষ্ট হতে হবে। ক্যমেরার ফোকাস নিয়ে একটু জেনে নিন। সাবজেক্ট স্পষ্ট না হলে ছবিটাই মাটি।

* নিয়মিত ছবি তুলুন। প্রচুর ছবি তুলুন। ডিজিটাল ক্যমেরায় ছবি তুলতে কষ্ট নেই, খরচও নেই। তাই সুযোগ পেলেই ছবি তুলুন। এর ফলে আপনার অভিজ্ঞতা বাড়বে, নিজের ভুল থেকে শিখতে পারবেন দ্রুত।

আপনাদের সুবিধার কথা ভেবে আমাদের সবসময়েরই একটা চেষ্টা থাকবে ফোটোগ্রাফি নিয়ে নিয়মিত তথ্য সমৃদ্ধ লেখা প্রকাশ করতে। আপনারাও আমাদেরকে জানান কোন ধরনের টপিক নিয়ে আপনাদের জানার আগ্রহ বেশি। আমরা আমাদের লেখায় সেগুলোর প্রতিফলন ঘটানোর চেষ্টা করবো।

সুন্দর ছবির জন্য অগ্রিম শুভেচ্ছা রইল!!

(কৃতজ্ঞতাঃ খন্দকার ইশতিয়াক মাহমুদ)

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *