আজকাল জিন্স হয়ে গেছে দৈনন্দিন পোশাকের প্রধান চাহিদা বা ট্রেন্ড। জিন্স নারী পুরুষ সবারই পছন্দের একটি পোশাক। আবার জিন্সের যত্ন নেয়ার বেপারটা আমরা সবাই কম বেশি জানি। জিন্স ভারী কাপড়ের ক্যাটাগরিতে পরে তাই পরিষ্কার করতে একটু কষ্টকর হলেও পরিধান করতে অনেক আরাম ও খুবই সুলভ মূল্যে পাওয়া যায় তাই বিশ্বব্যাপী এর কদর শুধু বাড়ছেই। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা জিন্স যথা সম্ভব না ধুওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। তাহলে আসুন এইবার দেখে নেই শখের জিন্সটিকে কেমন করে আরো বেশি দিন ব্যবহারের উপযুক্ত রাখা যায়।

শুকানো ও ধোয়ার সময় জিন্স উল্টিয়ে দিনঃ
জিন্স ধোয়ার পরে অনেকটা ফ্যাকাসে হয়ে যায়। এটি রোধ করার জন্য লন্ড্রিতে দেয়ার আগে বা নিজে ধোয়ার আগে জিন্সটি উল্টিয়ে নিন এবং রোদে দেয়ার সময় ও উল্টো অবস্থায় রোদে শুকাতে দিন। এর ফলে খুব দ্রুত জিন্সের রঙ নষ্ট হবেনা।

দাগ দূর করুনঃ
আপনার প্রিয় জিন্সটিতে যদি দাগ লেগে যায় তাহলে সেই দাগ দূর করার জন্য বেকিংসোডা ও পানি দিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এবার একটি পুরনো টুথব্রাশে এই পেস্ট লাগিয়ে দাগের জায়গায় আস্তে আস্তে ঘষুন। দেখবেন দাগ দূর হবে সহজেই।

দুর্গন্ধ দূর করুনঃ
আপনার জিন্সের দুর্গন্ধ দূর করার জন্য যদি ধোয়ার সময় না থাকে তাহলে এটিকে একটি পালাস্টিকের জিপলক ব্যাগে ভরে ডিপ ফ্রিজে রাখুন। কিছুক্ষণ পরে বের করে দেখুন এর দুর্গন্ধ দূর হয়ে একেবারে নতুনের মত হয়ে গেছে।

টাইট করার জন্যঃ
অনেক সময়ই জিন্সের কোমরের দিক ঢিলা হয়ে যায়। একে ঠিক করার জন্য ওয়াশিং মেশিনে ধোঁয়ার সময় গরম পানি ব্যবহার করুন এবং হিট ড্রাই করুন।

রঙ অটুট রাখার জন্যঃ
আপনার নতুন জিন্সটি প্রথমবার ধোঁয়ার আগে লবণ পানিতে ভিজিয়ে রাখুন কিছুক্ষণ। তারপর স্বাভাবিক নিয়মে ধুয়ে ফেলুন। এতে করে জিন্সের রঙ অটুট থাকবে।

জিন্সের কোমর প্রশস্ত করার জন্যঃ
অনেক সময় জিন্সের কোমরের অংশ বেশ টাইট মনে হয়। এই অবস্থাটি থেকে মুক্তি পেতে চাইলে জিন্স ধোঁয়ার পরে একে বাতাসে শুকাতে দিন এবং কোমরের অংশটি টেনে প্রশস্ত করে ক্লিপ দিয়ে আটকে দিন।

তেল-চর্বির দাগ দূর করুনঃ
আপনার জিন্সে যদি তেলের দাগ লেগে যায় তাহলে দাগের উপরে বেবি পাউডার দিয়ে সারারাত রেখে দিন। পাউডারের উপাদান তেল-চর্বির দাগ শোষণ করে নিবে।

পড়ুনঃ কাপড় থেকে যে কোন দাগ তোলার সহজ উপায়

জিন্স কেনার সময় মনে রাখুনঃ
জিন্স কেনার সময় দেখে নিবেন এটির প্রসারণ ক্ষমতা ২% পর্যন্ত আছে কিনা। জিন্সটি পরে অন্তত ৬০ সেকেন্ড অপেক্ষা করে দেখুন এর আকার একই রকম থাকে কিনা। জিন্সটি যদি আপনার ঠিকমত ফিট না হয় তাহলে আপনাকে দেখতে ভালো দেখাবে না।

আয়রন করুনঃ
আপনার ব্যবহৃত জিন্সটিকে নতুনের মত করে তুলতে একে আয়রন করে নিন। এতে আপনার জিন্সটি দীর্ঘদিন ব্যবহার করতে পারবেন এবং স্বচ্ছন্দ অনুভব করবেন। এতে জিন্সের আয়ু বৃদ্ধি পায়।

যতটা সম্ভব কম ধোয়ার চেষ্টা করুনঃ
ওয়াশিং মেশিনে বা হাতে ঘন ঘন জিন্স প্যান্ট ধুলে তা মলিন হয়ে পড়ে অল্প দিনেই। তাই যতটা সম্ভব কম ধোয়ার চেষ্টা করুন। একটি জিন্স প্যান্ট সাধারণত আমরা ৩-৪ দিন পরার পর ধুয়ে ফেলি। ধরা যাক, আপনার ৩টি জিন্সের প্যান্ট আছে। প্রতিটি ২ দিন করে পরার পর রোদে শুকিয়ে রাখুন। পরের সপ্তাহে আরও ২ দিন তা পরা যাবে। ফলে প্রতি মাসে আপনার প্যান্টটি ধোয়া হচ্ছে মাত্র ২ বার। এই পদ্ধতিতে কয়েক বছর পর্যন্ত একই জিন্স ব্যবহার করা যায়।

শাওয়ার নেয়ার সময় বাথরুমে রাখুন জিন্সঃ
হ্যাঁ আপনি যখন বাথরুমে হট শাওয়ার নেয়ার জন্য যাবেন তখন আপনার জিন্সটিকে বাথরুমে ঝুলিয়ে রাখুন। গরম ভাপে জিন্সের ভাঁজ দূর হবে এবং আপনার গোসল শেষ হওয়ার সাথে সাথেই জিন্সটিও পরার জন্য উপযুক্ত হবে।

জিন্সের প্যান্ট হাতে ধোয়ার চেষ্টা করুনঃ
ভারী জিন্সের প্যান্টগুলো ধোয়া কষ্টকর, তাই আমাদের প্রবণতা থাকে সেসব লন্ড্রিতে পাঠানোর বা ওয়াশিং মেশিনে ধোয়ার। এতে করে জিন্স খুব দ্রুত ছিঁড়ে যেতে পারে। শখের জিন্সগুলো ধুয়ে নিন নিজ হাতে। আধা বালতি পানিতে এক কাপ ভাল মানের কাপড় কাঁচার পাউডার গুলে নিন। ১৫-২০ মিনিট জিন্সের প্যান্ট এতে ভিজিয়ে রেখে ঠাণ্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন।

জেনে নিনঃ কাপড় ধোয়ার নিয়ম

প্যান্ট ধোয়ার আগে পড়ে নিন গার্মেন্টস ট্যাগটিঃ
জিন্সের প্যান্টের ভেতরের অংশে লক্ষ্য করুন একটি সাদা ট্যাগ লাগানো আছে, যেখানে নির্দেশনা দেয়া আছে কোন পদ্ধতিতে প্যান্টটি পরিষ্কার করতে হবে। প্যান্ট ধুয়ে ফেলার আগে ট্যাগটি ভাল ভাবে পড়ে নিন। কিছু কিছু জিন্স ঠাণ্ডা পানিতেই ধুয়ে নেয়া যায়, আবার কিছু জিন্সের জন্য যেমন ডেনিম(denim) ড্রাই ওয়াশ পদ্ধতি বেশি কার্যকর।

লবণ এবং ভিনেগার ব্যবহার করুনঃ
দীর্ঘদিন জিন্স প্যান্টের রঙ উজ্জ্বল রাখতে চাই আমরা সবাই। এক কাপ ভিনেগার এবং চার ভাগের এক কাপ লবণ মিশিয়ে নিন ঠাণ্ডা পানিতে। এর পর প্যান্ট তাতে ভিজিয়ে রাখুন ১৫-২০ মিনিট। ভিনেগার এবং লবণের মিশ্রণ আপনার জিন্সের রঙকে স্থায়ী করে তুলবে। প্যান্টে ভিনেগারে গন্ধ হয়ে যাবে বলে ভয় পাচ্ছেন? সাধারণ পানিতে ধুয়ে শুকিয়ে নিয়ে গন্ধ চলে যাবে।

তথ্যসুত্রঃ ইন্টারনেট ও নতুনকাগজ ডট কম

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *